Home জেলার খবর ফুসফুস ফুটো করে বেরিয়ে গিয়েছিল রড,করোনার আবহে বিরল অস্ত্রোপচার মালদহ মেডিক্যাল কলেজে

ফুসফুস ফুটো করে বেরিয়ে গিয়েছিল রড,করোনার আবহে বিরল অস্ত্রোপচার মালদহ মেডিক্যাল কলেজে

0 second read
0
5,843
বিরল অস্ত্রোপচার মালদহ মেডিক্যাল কলেজে

মালদহ নিউজ ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের আবহে সফল অস্ত্রোপচার মালদহ মেডিক্যাল কলেজে। অভিজ্ঞ চিকিৎসক ডক্টর অজিত কুমার মৌলিক মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওটিতে এক তিন বছরের শিশু কন্যার বিরল অস্ত্রোপচার করে ফুসফুস ফুটো করে দেওয়া ১০ এম এম এর রড বের করেন। বর্তমানে ওই শিশু মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন । আপাতত বিপদমুক্ত রয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। শনিবার রাতে প্রায় ৩ ঘন্টা অস্ত্রোপচার করে সাফল্য এসেছে। অভিজ্ঞ চিকিৎসক ডক্টর মৌলিক সহ ইন্টার্ন চিকিৎসকদের তৎপরতায় মালদহ মেডিক্যালে এ ধরনের বিরল অস্ত্রোপচার হওয়ায় করোনার মধ্যে খুশির খবর এনে দিয়েছে। এতে উৎসাহিত মালদহ মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষ। ফারাক্কা এলাকা থেকে ওই শিশুকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় মালদহ মেডিকেল কলেজ আনা হয়।

শিশুটি মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন
শিশুটি মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন

তার শরীরে ১০ এমএম এর রোড এফোঁড়-ওফোঁড় করে দিয়েছিল। রাতে সংকটজনক অবস্থা তৈরি হওয়ায় মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক মৌলিক বাবু চেষ্টা চালিয়ে ওই শিশুর শরীর থেকে লম্বা রড বের করে আনেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন,শিশুর ডানদিকে পাঁচ থেকে রড ঢুকে বাঁ দিকের বগল ফুটো করে বেরিয়ে গিয়েছিল। যে কারনে শরীরের ভিতরের অংশে পেটের নাড়িভুড়ি ছিড়ে যায়। বুক ও পেটের পর্দা ছিড়ে ফুসফুস ফুটো করে বেরিয়ে গিয়েছিল। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই শিশু বাড়ির ছাদে খেলা করছিল। সেই সময় অসাবধানতাবশত সে পিছলে পড়ে পাশের নির্মীয়মান একটি বিল্ডিং এর দাঁড় করানো রডের মধ্যে ঢুকে যায়। সে অবস্থায় রোড কেটে সন্ধ্যা সাতটা নাগাদ মালদহ মেডিক্যাল শিশুকে আনা হয়। চিকিৎসক ডক্টর অজিত কুমার মৌলিক বলেন, যে অবস্থায় শিশুকে আনা হয়েছিল তাতে বাঁচানো কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছিল। সহযোগী চিকিৎসকদের সাহায্যে সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে। আপাতত শিশু বিপদমুক্ত। — প্রেস এজেন্সি ।

Load More Related Articles
Load More By Press Agency
Load More In জেলার খবর

Leave a Reply

Check Also

Press agency it cell. certified videography agency

Deliver the message of your organization through the agency IT cell. We have brought new p…