Home জেলার খবর লকডাউনের জেরে সংকটে বহু গরিব পরিবার ,প্রশাসনিক হস্তক্ষেপের দাবি

লকডাউনের জেরে সংকটে বহু গরিব পরিবার ,প্রশাসনিক হস্তক্ষেপের দাবি

10 second read
0
157
লকডাউনের জেরে সংকটে বহু গরিব পরিবার ,প্রশাসনিক হস্তক্ষেপের দাবি

করোনা (COVID – 19 ) ভাইরাস  মোকাবিলায় লকডাউনে মালদহ  জেলাজুড়ে বিভিন্ন প্রান্তে খেটে খাওয়া শ্রমিক পরিবারের দুরবস্থা শুরু হয়েছে।  বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দারা  লকডাউন পরিস্থিতির জেরে সঙ্কটে রয়েছেন। বেশ কিছুদিন ধরে কাজ করতে না পেরে তারা পরিবার চালাতে হিমশিম  খাচ্ছেন । বর্তমান পরিস্থিতিতে অনেকেই অসহায় । যে কারণে সরকারি ত্রাণ সামগ্রী সাহায্যের জন্য তারা তাকিয়ে রয়েছেন ।জেলার বিভিন্ন প্রান্তের ব্লকের প্রত্যন্ত এলাকাগুলিতে কান পাতলেই দুরবস্থার কথা শোনা যাচ্ছে ।অনেকের খাদ্য সংকট শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন ক্লাব ,সংগঠন, স্বেচ্ছাসেবকরা গরিবদের কথা ভেবে এগিয়ে আসলেও ব্যাপক অর্থের  সাহায্যের উৎসাহ তেমন নেই ।যে কারণে গরীব খেটে খাওয়া মেহনতী মানুষের পরিবার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।  সরকারি ভাবেও  দুস্থদের পাশে দাঁড়ানো হচ্ছে না বলে অভিযোগ।  অনেক গরীব পরিবার সরকারি সাহায্যের আশায় তাকিয়ে রয়েছেন।  পুরাতন মালদহ, হবিবপুর বামনগোলা ,গাজোল, কালিয়াচক,  মানিকচক, চাঁচল সহ বিভিন্ন ব্লকের গরিব পরিবার বিপাকে পড়েছেন। করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় পরিস্থিতিতে লকডাউনে সরকারকে তারা সমর্থন করলেও খাদ্য সংকটের জেরে বেঁচে থাকার এক প্রকার লড়াইও চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা। এ প্রসঙ্গে অসহায় পরিবারের বক্তব্য,  পরিস্থিতির কারণে তারা বাইরে কাজ করতে যেতে পারছেন না ।যে কারণে আর্থিক অনটন শুরু হয়েছে। এটি আরও বেশ কিছুদিন ধরে চলবে। এই মতো অবস্থায় প্রশাসনিক ভাবে তাদের খাদ্যসামগ্রীর ব্যবস্থা না করলে  অবস্থা শোচনীয় হবে। পুরাতন মালদহের  মুচিয়া বারুইপাড়া গ্রামের বাসিন্দারা বলেন, আমরা শ্রমিক শ্রেণীর । দিন আনে দিন খায়। বেশ কিছুদিন ধরে কাজ না থাকায় পারিবারিক অনটন চলছে। বর্তমানে আমরা পরিস্থিতির শিকার। এমত অবস্থায় প্রশাসনিক পদক্ষেপ প্রয়োজন।

Load More Related Articles
Load More By Press Agency
Load More In জেলার খবর

Leave a Reply

Check Also

মঙ্গলবাড়ি কামঞ্চ উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র সরানোর নিয়ে শাসক-বিরোধী তরজা, সভাপতিকে অভিযোগ

মালদহ নিউজ ডেস্ক: মালদহের মঙ্গলবাড়ির কামঞ্চ গ্রামের উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র সরিয়ে বলাতুলি গ্…