Home ঐতিহাসিক মালদহের আদিনা পর্যটনকেন্দ্র ঘিরে পর্যটক মহলে আগ্রহ বাড়ছে

মালদহের আদিনা পর্যটনকেন্দ্র ঘিরে পর্যটক মহলে আগ্রহ বাড়ছে

0 second read
0
178
আদিনা হরিণ পার্ক

মালদহের গাজোল ব্লকের পানডুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে অবস্থিত আদিনা পর্যটন কেন্দ্র ঘিরে দিনের পর দিন পর্যটক মহলের উৎসাহ বাড়ছে । প্রতিদিন পর্যটকরা সেখানে ছুটে আসেন । সুলতান সিকান্দার শাহ কর্তৃক নির্মিত আদিনা জামে মসজিদ  জেলার অন্যতম স্থাপত্যকলার নিদর্শন রয়েছে । কী রয়েছে সেই ইতিহাস ?

মালদহের গাজোল ব্লকের পানডুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে অবস্থিত আদিনা পর্যটন কেন্দ্র ঘিরে দিনের পর দিন পর্যটক মহলের উৎসাহ বাড়ছে । প্রতিদিন পর্যটকরা সেখানে ছুটে আসেন । সুলতান সিকান্দার শাহ কর্তৃক নির্মিত আদিনা জামে মসজিদ  জেলার অন্যতম স্থাপত্যকলার নিদর্শন রয়েছে । কী রয়েছে সেই ইতিহাস ? পুরাতত্ত্ব বিভাগ সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৩৬৪ – ১৩৭৪ খ্রিস্টাব্দে সুলতান সিকান্দার শাহ আদিনা বা জামি মসজিদ নির্মিত করেন। যা বাংলা তো বটেই গৌড় বঙ্গের ঐতিহাসিক স্থাপত্যকলার নিদর্শন বহন করে। আদিনা সৌধের ভেতরে একটি বৃহৎ প্রার্থনা স্থল রয়েছে। তার চারিদিকে রয়েছে খিলান সমৃদ্ধ গম্বুজাবৃত প্রদক্ষিণ পথ ।  যা পর্যটকদের  আকর্ষনে থাকে । আদিনা সৌধের ভেতরে পশ্চিম প্রান্তে রয়েছে ইমামের জন্য একটি উচ্চ পীঠ।  তাছাড়া চারদিকে রয়েছে বাদশাহ – কি – তখকত নামক একটি উচ্চ রাজ আসন । সে আসনটি সুলতান এবং তার পরিবারের মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত ছিল । আদিনা সৌধের ভেতরে যে পাথরগুলি ব্যবহৃত হয়েছে সেগুলি পূর্ব স্থাপত্যের কীর্তি বহন করছে। আদিনা মসজিদের ভিতরে পশ্চিম দিকে দেওয়ালের  একটি কক্ষটিতে সুলতান সিকান্দার শাহ সমাহিত রয়েছে।   ঐতিহাসিক এই প্রাচীন সৌধটি ইতিহাসের নানার সাক্ষী বহন করায় দিনের পর দিন ব্যাপক পর্যটনের সম্ভাবনা গড়ে উঠছে।

Load More Related Articles
Load More By Press Agency
Load More In ঐতিহাসিক

Leave a Reply

Check Also

Press agency it cell. certified videography agency

Deliver the message of your organization through the agency IT cell. We have brought new p…